মহরম সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ কথা, সকলের জানা উচিত

Share:
রাত পোহালেই মহরম। আমাদের যারা মুসলিম ভাই-বোনেরা রয়েছেন তারা সবাই এই দিনটির জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করে আছে। এবার আসুন মহরম সম্পর্কে জেনে নেই অনেকগুলো গুরুত্বপূর্ণ কথা।

maharam-2020

১. মহরম ২০২০ কত তারিখ আর মহরম ২০২০ এ কয়টি রোজা রাখতে হবে?



২৯ শে আগস্ট শনিবার ২০২০, দিবাগত আশুরা রাত্রি ।এই বছর ৯ ও ১০ মহরম ২৯ ও ৩০ আগস্ট ২০২০ শনিবার ও রবিবার আশুরার দুইটি রোজা রাখতে হবে।আবার অনেক মুসলমান ১০ ও ১১ মহরম ও আশুরার রোজা রাখেন।


২: আশুরা মানে কি?



আশুরা হল একটি আরবিক শব্দ। আরবিক বারো মাসের মধ্যে প্রথম মাসটির নাম হল মহরম। আর এই মহরম এর দশম যে তারিখ টি তাকেই আশুরা বলা হয়।


৩: আশুরার রোজার ফজিলত কি?



আশুরার রোজার ফজিলত নিয়ে অনেকে অনেক কথা বলে গেছেন। তবে সকলের কথারই মূল বক্তব্য ছিল যদি কেউ আশুরার রোজা রাখেন তাহলে তার রোযা রাখার পূর্বের এক বছরের সব গুনাহ আল্লাহ মাফ করে দেবেন।


৪: আশুরার দিনের গুরুত্ব কি কারবালার কারণে?



ইসলামিক মতে এটা সম্পূর্ণ ভ্রান্ত ধারণা কারণ সাল্লাল্লাহু মৃত্যুর আগে থেকেই রোজা রাখা শুরু করেছিলেন আর উনার মৃত্যুর প্রায় ৫০ বছর পর কারবালার সংঘটিত হয়েছিল। তাই একথা অবশ্যই বলা যায় যে আশুরা সঙ্গে কারবালার যে গল্প রচিত হয়েছে সেটা নিতান্তই ভুল।



৫: আশুরার দিনে আরো কতগুলি কথা কথিত আছে,এগুলি কি আসলেই সত্যি?



যেমন এই দিনে ইউসুফ জেল থেকে মুক্তি পেয়েছেন, আশুরার দিন এই কেয়ামত সংঘটিত হবে, এই দিনেই ইউসুফ মাছের পেট থেকে মুক্তি পেয়েছিলেন ইত্যাদি ইত্যাদি। এই কথাগুলো কতটা সত্যি কি সেটা সত্যিই জানার বিষয় কারন মুসলমানদের কোন কোরআন বা হাদিসে এর কোনো উল্লেখ নেই।


৬: এই দিনে রোজা না রেখে কারবালার কারণে মাতন করা ঠিক হবে কিনা?



ইসলামিক কোন ধর্মগ্রন্থ অর্থাৎ কুরআন বা হাদীসের এমন কোন কথা লেখা নেই যা রোজা থেকেও বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এই দিনে আলাদা করে কোনো শোক প্রকাশের গুরুত্বই নেই। সবচেয়ে বেশি যদি করতে হয় তবে কারবালা সম্পর্কে আলোচনা অবশ্যই করা যেতে পারে ।


৭: মহরম মাসে বিয়ে করা যাবে কিনা?



ইসলাম ধর্ম মতে এমন কোন মাস বা দিন নেই যেখানে বিয়ে করা যাবে না আর বিশেষ করে মহরম মাস তো আল্লাহর মাস সময় কোন শুভ কাজ করা থেকে বিরত থাকার কোন প্রশ্নই ওঠে না।



কোন মন্তব্য নেই

Please share your opinion

_M=1CODE.txt Displaying _M=1CODE.txt.