তোলা দিতে না চাওয়ায় গৃহবধূকে ধর্ষণ তোলাবাজদের।

Share:
দিব্যেন্দু গোস্বামী: তোলা দিতে না চাওয়ায় এক গৃহবধূকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটলো বিহারে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার রাত্রে ভাগলপুর এলাকায়। গত কয়েকদিন আগে মুম্বাই শহরের সাকিনাকা ঘটনা এখনো মুছে যায়নি। মুম্বাই এ 34 বছরের এক মহিলাকে ধর্ষণ করার পর যৌনাঙ্গে রড ঢুকিয়ে দেয় এক দুষ্কৃতী এবং অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ এর জন্য মারা গিয়েছিল সেই মহিলা। এরই মধ্যে আবারও ধর্ষণের ঘটনায় তোলপাড় সারাদেশ। 

ঘটনায় প্রকাশ ওই গৃহবধূর স্বামী ছোট একটি দোকান করে ভাগলপুর এলাকায়। এবং সেখানে যা ইনকাম হয় সেই দিয়েই চলে তাদের সংসার। কিন্তু ওই এলাকার ত্রাস সায়ন যাদব ও কানহাইয়া নামের দুই যুবক ঐ সমস্ত এলাকার যে সমস্ত দোকান রয়েছে তাদের কাছ থেকে তোলা আদায় করে প্রতি সপ্তাহে। পুলিশ সূত্রের খবর এই তোলা দিতে অস্বীকার করে ওই গৃহবধূর স্বামী। তারপরেই এই ধর্ষণের ঘটনা ঘটে বলে জানা গিয়েছে। প্রতি সপ্তাহে সায়ন যাদব ও কানাইয়া কে 500 টাকা করে মাসিক দিতে হয় বলে জানা গিয়েছে।

মহিলা জানিয়েছে তাদের কষ্টের উপার্জনের 500 টাকা দিতে অস্বীকার করে তারা। ফলে ওই মহিলার স্বামীকে খুনের হুমকি দেয় ওই তোলা বাজরা। এরপর স্বামীকে নিয়ে ওই মহিলা ওই তোলাবাজ দের কাছে গিয়ে বিষয়টি মিটমাট করে নেওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু তারপরই শুরু হয় কথা কাটাকাটি।

 পুলিশ সূত্র থেকে জানা গিয়েছে এরপরই রিভলবার বের করে ওই গৃহবধূকে একটি গোপন জায়গায় নিয়ে গিয়ে সায়ন যাদব এবং কানাইয়া দুজনে মিলে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। ওই মহিলা থানায় লিখিত অভিযোগ জানালে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে ওই মহিলার মেডিকেল পরীক্ষা করানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধর্ষণের প্রমাণ মিলেছে। সায়ন যাদব এবং কানাইয়া এই দুজন এখন পলাতক। তাদেরকে গ্রেফতার করার জন্য তল্লাশি শুরু করেছে ভাগলপুর থানার পুলিশ।


কোন মন্তব্য নেই

Please dont enter any spam link in the comment box.

_M=1CODE.txt Displaying _M=1CODE.txt.